আলুরচপ

আলুরচপ, ইফতারীর খুবই জনপ্রিয় আইটেম।ইহা বানানো যায় কয়েকভাবে তবে আমার কাছে সবচেয়ে পছন্দ বেসনের কোটিং এ বানানো আর অবশ্যই বাসায় বানানো।কারন ইদানিং দোকানের আলুর চপে আলু খুজে পাওয়া মুশকিল…

উপকরন

  • আলুঃ ১কেজি(গরম পানিতে আলু সিদ্ধ করে পানি শুকিয়ে নিন)
  • পেয়াজকুচিঃ দেড় কাপ
  • শুকনোমরিচঃ ৬-৮পিস(টেলে গুড়ো করা)
  • সরিশার তেলঃ ১টেবিলচামচ
  • টালা জিরা ও ধনে গুড়োঃ ১চা চামচ করে
  • গরম মশলা গুড়োঃ ১চা চামচ
  • চাট মশলা বা চটপটির মশলা গুড়ঃ ১চাচামচ
  • আচারের তেল বা গরুরমাংশ রান্না করার পর যে তেল বের হয় সেটাঃ ২টেবিলচামচ(স্বাদ বাড়ানোর জন্য)
  • লবন ও ধনেপাতা কুচি পরিমানমত

আলু সিদ্ধ করে হাড়ির পানি শুকিয়ে নিন নয়ত আলুর ভেতরে পানি থাকবে।

হালকা গরম থাকা অবস্থায় ভর্তা করুন নয়ত মিহি করা যাবেনা।

প্যানে সরিষার তেল দিয়ে পেঁয়াজ দিন।নেড়েচেরে ভাজুন।হাল্কা বাদামি হলে শুকনো মরিচ দিয়ে মিশিয়ে আলু ভর্তা দিন।একে একে সব মশলা দিয়ে মিশিয়ে মাঝারি আচে কয়েকমিনিট রেখে নামিয়ে নিন।(আলু একটু ভেজে নিলে অতিরিক্ত পানি শুকিয়ে যায় তবে ভাজার সময় ভেঙ্গে যাবেনা)

এখন গোল বা কাবাবের মত বা যে কোণ আকারের বানিয়ে নিন।

কোটিং তৈরি

১ম পদ্ধতিঃ

  • বেসনঃ ২কাপ
  • রাধুনী বা আজয়িনঃ ১ টেবিলচামচ
  • হলুদ, টালা জিরা ও ধনে গুড়োঃ ১চা চামচ করে
  • শুকনো মরিচ গুড়োঃ ২চা চামচ
  • চাট মশলা বা চটপটির মশলা গুড়ঃ ১চাচামচ
  • বেকিং পাউডারঃ ১/২চাচামচ
  • লবনঃ ১/২চাচামচ

উপরের সব উপকরন একসাথে মিশিয়ে নেই।পরিমান্মত পানি মিশিয়ে কিছুটা ঘন ব্যাটার করে নেই যাতে ব্যাটার চপের গায়ে লেগে থাকতে ্পারে।

তেল গরম করে নিন।সাবধানে আলুর চপগুলো বেসনে গড়িয়ে ডুবো তেলে ছারূণ।মচমচে হলে নামিয়ে পেপার টিস্যুয় রেখে গরম পরিবেশন করুন।

২য় পদ্ধতি বা ফ্রোজেন পদ্ধতিঃ

  • ময়দা ১কাপ
  • ডিম ফেটানোঃ ২টি
  • বিস্কুটের গুড়ো বা ব্রেড ক্রাম্বসঃ ২কাপ

চপগুলো ময়দাতে গড়িয়ে , ডিমে চুবিয়ে ব্রেড ক্রাম্বসে ভাল করে গড়িয়ে নিন। ডিপফ্রিজে রেখে দিন।১মাসো ভাল থাকবে এটি।

ভাজার ৩০ মিনিট আগে নামিয়ে নিন।অল্প তেলে সময় নিয়ে ভাজুন।

 

 

 

 

 

Leave a Reply