খাসির রেজালা

খাসির রেজালা,

বাঙ্গালীদের অথেনটিক শাহী কিছু খাবারের মধ্যে ইহা অন্যতম। একটু কম স্পাইসি আর ক্রিমি গ্রেভীর জন্য আমার বিভিন্ন দেশীয় মেহমানরাও ইহা খুবই পছন্দ করে ।

আমাদের দেশের বিভিন্ন অনুষ্ঠানে ইহা পোলাউএর সাথে পরিবেশন হয় তবে আমার বেশি পছন্দ পরোটা ও নান রুটির সাথে।

মাংস মেরিনেশনঃ

  • খাসির মাংসঃ ১কেজি
  • টকদইঃ ১/২কাপ
  • আদা বাটাঃ ২টেবিলচামচ
  • রসুনবাটাঃ ১টেবিলচামচ
  • লবনঃ ১চা চামচ

মাংস ধুয়ে পানি ঝড়ীয়ে নিন।

মেরিনেশনের সব কিছু মাংসের সাথে মিশিয়ে ঘন্টাখানেক রাখুন।

রেজালা রান্নাঃ

  • পেঁয়াজ বেরেস্তাঃ ১কাপ
  • মরিচের গুড়োঃ ২চা চামচ
  • তেলঃ ১/২কাপ(খাসির মাংশে বেশ তেল থাকে, তেলের পরিমান কম থাকলে আর একটু দেয়া যাবে)
  • গরম মশলা গুড়োঃ ১ চাচামচ
  • জায়ফল জয়ত্রি গুড়োঃ ১/২ চা চামচ
  • কাজু বাদাম বাটাঃ ১/৪কাপ
  • ক্রিম বা মালাইঃ ২টেবিলচামচ
  • টকদইঃ ১/২কাপ
  • লেবুর রসঃ ২ চা চামচ
  • চিনিঃ ১/২ চা চামচ
  • কাচামরিচঃ ৪-৫পিস
  • কেওড়া জলঃ ১/২চা চামচ

অন্যান্যঃ

  • ঘিঃ ২টেবিলচামচ
  • আস্ত গরম মশলাঃ(এলাচ ৩-৪পিস, দারচিনি ২ পিস, লবঙ্গ ৩-৪পিস, গোল মরিচঃ ১০ পিস, তেজপাতাঃ ১পিস)

টকদই, ১/২কাপ বেরেস্তা, ক্রিম, বাদাম বাঁটা একসাথে ব্লেন্ড করে নেই।

হাড়িতে তেল দিয়ে মেরিনেড করা মাংস দিয়ে উচ্চ তাপে রান্না করতে থাকুন। বারবার নেড়ে দিন।মাংসের পানি শুকিয়ে গেলে টকদইয়ের মিশ্রন , গুঁড়ো মশলা দিয়ে মিশিয়ে নিন। এখন ঢেকে অল্প আচে রান্না করুন ৩০ মিনিট, মাঝেমাঝে নেড়ে দিন।(আমি প্রেসার কুকারে দিয়েছিলাম তাই ৩০ মিনিটে মাংস সিদ্ধ হয়ে গিয়েছিল)

এখন ১কাপ দুধ দিয়ে আবার ঢেকে অল্প আচে মাংস সিদ্ধ হওয়া পর্যন্ত রান্না করুন। লবন দেখুন।

মাংস সিদ্ধ হয়ে গেলে লেবুর রস, চিনি, কাচামরিচ ও কেওড়া দিয়ে নেড়ে ঢেকে দিন ৫ মিনিট।

এখন অন্য প্যানে ঘি ও আস্ত গরম মশলা দিয়ে হালকা ভেজে রেজালাতে দিয়ে মিশিয়ে নিন।২ মিনিট রেখে চুলা বন্ধ করে বাকি বেরেস্তা দিয়ে মিশিয়ে গরম পরিবেশন করুন।

 

 

Leave a Reply