আফলাতুন, মিষ্টির দোকানের একমাত্র বেকইড সুইটস এটি।দেখতে কেক বা ড্রাইকেকের মত হলেও স্বাদ পুরোপুরি ভিন্ন।খুবি মজাদার আর অনেকদিন সংরক্ষণ করা যায়।
আর আমার স্পেশাল রেসিপিতে বানিয়ে জানাবেন অবশ্যই দোকানের টা বেশি টেস্টি না আমারটা….

উপকরন

  • গুড়োদুধঃ ৩/৪ কাপ
  • মাওয়াঃ ৩/৪ কাপ( মাওয়ার বদলে পুরোটাই গুড়োদুধ দিয়ে করতে পারেন।সেক্ষেত্রে দেড় কাপ লাগবে সব মিলিয়ে)
  • সুজিঃ ১/৪কাপ
  • ময়দাঃ ১টেবিলচামচ
  • এলাচগূড়োঃ ১/২চা চামচ
  • চিনিঃ ৩/৪ কাপ
  • ডিমঃ ৩টি
  • দেশী ঘিঃ ১/৪কাপ
  • বাদাম(কাঠবাদাম বা পেস্তা) ও কিছমিছ কুচিঃ ১/৪কাপ

গুড়োদুধ, সুজি ও ময়দা ভাল করে মিশিয়ে নিন।

ননস্টিক প্যানে ঘি দিয়ে গুড়োদুধের মিশ্রন দিয়ে অল্প আচে অনবরত নাড়ুন।এতে সুজির কাচাভাব চলে যাবে আর গুড়োদুধ একটু ভাজার কারনে সুন্দর ঘ্রান ছড়াবে।মিশ্রনটি রং বদলাতে শুরু করলেই চুলা বন্ধ করে ঠান্ডা হতে দিন।খেয়াল রাখতে হবে যাতে আবার ব্রাউন না হয়ে যায়।

লোফ প্যান বা ৯ইঞ্চি লম্বা পাউন্ড কেক প্যানে বেকিং পেপার বিছিয়ে নিন বা মাখন ব্রাশ করে ময়দা ছিটীয়ে গ্রিজ করে নিন।ওভেন ১৮০সে প্রিহিট ক্রুন।

মাওয়া গুঁড়ো করে বা গ্রেটকরে নিন।

ডিম ও চিনি একসাথে ভাল করে ফেটিয়ে নিন যাতে চিনির দানা না থাকে।এখন একে একে ভাজা গুড়োদুধের মিশ্রন, মাওয়া ও এলাচগুড়ো দিয়ে বিট করুন।বাদামকুচি দিন। ভাল করে মিশিয়ে নিন।

লোফপ্যানে ঢেলে ৪০ মিনিট বেক করুন।উপরে বাদামি হয়ে গেলে ওভেন বন্ধ করে কিছুসময় রাখুন।লোফপ্যান থেকে বের করে পিস করে নিন।এয়ারটাইট বক্স এ রেখে দিতে পারেন কয়েকদিন।

চাইলে চুলাতেও কেকের মত করে বানাতে পারেন।

 

 

Leave a Reply