আঙ্গুড়ী রাবড়ি

আঙ্গুড়ী রাবড়ি,

সফট, জুসি, ঝটপট বানানো দোকানের স্বাদে গোলাবজামন আর ইহাকে আরো স্পেশাল করার জন্য সাথে ঘন দুধের রাবড়ী।
বিশেষ দিনে বা মেহমানদারীতে ডেজার্ট হিসেবে বেশ মানাবে এই রাবড়ি জামন।

মিস্টি তৈরিঃ

গুঁড়ো দুধঃ ১কাপ
ময়দাঃ ১ টেবিলচামচ
সুজিঃ ২ টেবিলচামচ
ঘি বা মাখনঃ ১ টেবিলচামচ
বেকিং পাউডারঃ ১/২(হাফ) চা চামচ
লিকুইড দুধঃ ১/৪কাপ
তেলঃ ৪কাপ

সুজি ১ টেবিলচামচ পানির সাথে মিশিয়ে ঢেকে রাখুন ৫ মিনিট।এতে সুজি পানি শুষে সফট হবে।

 

গুঁড়ো দুধের সাথে একে একে ময়দা , বেকিং পাউডার ও ঘি মাখিয়ে নিন ভাল করে। এখন সফট সুজি দিয়ে আবার মিশিয়ে নিন। আস্তে আস্তে সবটুকু তরল দুধ মিশিয়ে খুবই নরম খামির বানিয়ে নিন।কিছুক্ষন ঢেকে রাখুন।

১কাপ চিনির সাথে ২ কাপ পানি ও ৩পিস এলাচ দিয়ে মিশিয়ে চুলাতে দিন।ফুটে উটলে চুলা বন্ধ রাখুন।ঢেকে রাখুন।

কড়াইতে তেল অল্প আচে গরম হতে দিন।তেল গরম হলে চুলার আচ একদম কমিয়ে দিন।

এখন খামির থেকে বলের আকারে বানিয়ে গরম তেলে ছাড়ুন।১২ পিসের মত হবে।(বলগুলো একদম স্মুথ না হলেও সমস্যা নেই, তেলে ছাড়লে আকার মসৃন হয়ে যাবে)

সময় নিয়ে আস্তে আস্তে গাড়ো বাদামি করে ভাজুন।(ভাজতে প্রায় ১২-১৫ মিনিট সময় লাগবে)()

মিস্টি ভাজা হলে তেল থেকে তুলে সিরায় দিয়ে ঢেকে দিন। এখন সিরাসহ মিষ্টি অল্প আচে ১০ মিনিট রাখুন। ১/২ চা চামচ গোলাপ জল দিয়ে নামিয়ে ঠান্ডা করুন।

রাবড়ী তৈরিঃ

  • দুধঃ ১লিটার
  • চিনিঃ ২ টে চা
  • এলাচঃ ৩ পিস
  • বাদাম কুঁচিঃ ১/৪কাপ

দুধ চুলায় দিয়ে মাঝারি আচে রাখুন। নেরেনেড়ে দুধ কিছুটা ঘন করুন। এখন ২টেবিলচামচ চিনি ,এলাচ দিয়ে ৫ মিনিটের মত রাখুন। দুধ ঘন হয়ে অর্ধেক হয়ে গেলে বাদামকুচি দিয়ে মিশিয়ে চুলা বন্ধ করুন।ঠাণ্ডা করে নিন।

গোলাব্জামন পরিবেশনের পাত্রে সাজিয়ে উপরে রাবড়ি দিয়ে পরিবেশন করুণ।

 

 

Leave a Reply