ভোগ সাগর(মালাই ক্ষীর টোস্ট)

ভোগ সাগর(মালাই ক্ষীর টোস্ট)

(নামের ইতিহাস আমার জানা নাই)
টসটসা মালাইয়ে ভরপুর কামড়ে কামড়ে মজা…
বড় বড় মিস্টীর দোকানগুলোর ইহা এক জনপ্রিয় মিষ্টি।



• ছানাঃ ২কাপের কম (২ লিটার দুধের)(ছানার রেসিপি নিচে দেখুন)
• সুজিঃ ২ চা চামচ
• ময়দাঃ ১ চা চামচ
• মিহি গুড়ো চিনিঃ ১চা চামচ
• গোলাপজল ইচ্ছে অনুযায়ী

সিরার জন্যঃ
পানিঃ ৮ কাপ
চিনিঃ ২ কাপ

মালাইয়ের জন্য
দুধঃ ৩কাপ
চিনিঃ ১/২কাপ

প্লেটে ছানা নিয়ে কিছুসময় হাল্কা বাতাসে মেলে রাখুন।এতে ছানার পানি থাকলে শুকিয়ে যাবে।ছানা হাতের তালু দিয়ে মথে নিন ২মিনিট। এখন সুজি, ময়দা ও চিনিগুড়ো মিশিয়ে আরো ২-৩ মিনিট এর মত মথতে হবে।ছানা ১০ ভাগ করে নিন।সময় নিয়ে লম্বাটে (মাঝে কিছুটা মোটা আর দুপাশ কিছুটা পাতলা) আকারে বানিয়ে নিন।

হাড়িতে চিনির সঙ্গে পানি দিয়ে চুলায় দিন।ঢাকনা দিবেন না।ফুটে ওঠার পর সিরার ওপর থেকে ময়লা তুলে ফেলুন।
এখন সব ছানার চমচম একবারে সিরায় ছাড়ুন। আঁচ অনেক বাড়িয়ে ঢাকনা আটকিয়ে দিন।১০ মিনিট এভাবে রাখুন।১০ মিনিট পর ঢাকনা খুলে নেড়ে আবার ঢেকে আরো ২০ মিনিট রেখে চুলা বন্ধ করুন।৩০ মিনিট ঢেকে রাখুন।

অন্য প্যানে দুধ, চিনি দিয়ে ৫ মিনিট ফুটিয়ে চুলা বন্ধ করে নিন।গোলাপজল দিন।
মিষ্টিগুলো চিনির সিরা থেকে তুলে হালকা চেপে সিরা ঝরিয়ে গরম দুধে দিন।


৩-৪ ঘন্টা পর দুধ থেকে তুলে কোন কাপড় বা ঝাজড়ির উপর রাখুন ১ ঘণ্টা তবে অতিরিক্ত দুধ ঝড়ে যাবে।(কিন্তু চেপে দুধ ঝরাবেন না)
গুড়োদুধে গরিয়ে নিন।
ঠান্ডা পরিবেশন করুন।


[*******ছানা তৈরিঃ
• দুধঃ ২ লিটার

ভিনেগার/লেবুর রসঃ ৪ টেবিলচামচ
• সুতি /মসলিন নরম কাপড়
দুধ চুলায় দিয়ে ফুটতে শুরু করলেই চুলা বন্ধ করে দিন।
লেবুর রসের সাথে পানি মিশিয়ে অল্প অল্প করে দুধে মিশাতে থাকুন।দুধ ফেটে সবুজ পানি আলাদা হয়ে গেলে সাথে সাথে ছানা কাপড়ে ছেকে ফেলুন।এখন ঠান্ডা পানি দিয়ে ৩বার ধুয়ে নিন।
ছানার কাপড়ের পুতলি চেপে চেপে পানি বের করে উচু জায়গাতে ঝুলিয়ে রাখুন ৪-৬ ঘন্টা। (পানির কলের উপরে রাখলে ভাল হয়)]

 

Leave a Reply